মঙ্গলবার , জানুয়ারি ১২ ২০২১
Home / Uncategorized / গকুলনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের জমি দখলের প্রতিবাদে মানববন্ধন

গকুলনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের জমি দখলের প্রতিবাদে মানববন্ধন

খলিল, সাভার থেকে
ঢাকা জেলার সাভার উপজেলার আশুলিয়া থানার পাথালিয়া ইউনিয়ন পরিষদের গকুলনগর বাজারের পাশে দীর্ঘ ৫০ বছর যাবৎ গকুলনগর উচ্চ বিদ্যালয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সুনামের সাথে শিক্ষা সেবা দিয়ে আসছেন অত্র বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে। বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠানসহ রাস্তার পাশে মার্কেটের জমিগুলো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সাথে সম্পৃক্ত আছে। বিদ্যালয়ের উন্নয়ন ও অন্যান্য কার্যক্রম এর আর্থিক যোগান আসেন মার্কেটের দোকান ভাড়া থেকে। এই মার্কেটের জমির উপর অন্য কারো মালিকানা জমি বা লিজ নেওয়ার জমি নেই। ১৯৭০ সাল থেকে বিদ্যালয়ের জমিসহ মার্কেটের জমি ভোগদখল করে আসছিল সরকারি নিয়ম অনুসারে লিজ নিয়ে গকুলনগর উচ্চ বিদ্যালয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

পরে দীর্ঘমেয়াদি লিজ করার প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে বলে জানান অত্র বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এবং ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি। অবৈধ ভাবে কয়েকজন উচ্চ বিদ্যালয়ের মার্কেটের জমি দখল করতে গেলে বিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষ ও এলাকাবাসীর বাধা দেয় এবং তারা জানতে চায় বিদ্যালয়ের জমি আপনারা অবৈধভাবে দখল করতে আসছেন কেন।এই প্রসঙ্গে দখককারি গণ বলেন আমরা কোর্ট থেকে জমি ভোগদখলের জন্য লিজ নিয়ে এসেছি। তখন বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও এলাকাবাসী বলেন এই জমি সরকারের কাছ থেকে বিদ্যালয়ের নামে লিজ নেওয়া আছে এবং এটি দীর্ঘমেয়াদি লিজ নেওয়ার প্রক্রিয়া চলমান আছে। আপনারা কিসের ভিত্তিতে জমি লিজ নিয়ে আনলেন আমাদের কাগজ পত্র দেখান। এই ব্যাপারে বিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষ ও দখল করতে আসা লোকের সাথে বসার দিন তারিখ নির্ধারণ করে দ্বিতীয় পক্ষ অর্থাৎ জমি দখল কারিগন হাজির হননি।

গোকুলনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের জমি এবং মার্কেটের জমি ভূমিদস্যুদের হাত থেকে রক্ষার লক্ষ্যে ২৬ শে জানুয়ারি-২০২০ রবিবার সকাল ১০:০০ সময় গকুলনগর বাজারে মানববন্ধন করেন গকুলনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ ইয়াদ আলী সহ সকল শিক্ষক-শিক্ষিকা, ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ, বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোঃ নাজমুল হক আলী সহ অন্যান্য সদস্য,চাইল্ডকেয়ার কিন্টারগার্ডেনের প্রধান শিক্ষক মোঃ জয়নাল আবেদীন সহ অন্যান্য শিক্ষক শিক্ষিকা, ছাত্র ছাত্রী বৃন্দ এবং মোঃ রনি সহ অভিভাবকগণ।

গকুলনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি, অভিভাবকগণ বলেন নিজের বা কোন ব্যক্তি স্বার্থে নয় বিদ্যালয়ের জন্য এই জমিকে টিকিয়ে রাখতে হবে। এখানে কোন সন্ত্রাসী ভূমিদস্যুরা যেন খুঁটি গাড়তে না পারেন সে জন্য প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা ও প্রশাসনের সহযোগিতা চান। ভূমিদস্যুদের নাম ঠিকানা পরিচয় জানতে চাইলে উপস্থিত কেউই বলতে পারেনি এবং তারা বলে যে তাদের কে চিনে না আগে কখনো দেখিনি। তাদের একটাই দাবি সরকারি এই জমি গকুলনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের নামে আগে ছিল এখনো থাকবে ভবিষ্যতেও থাকবে। সরকার ও প্রশাসন যেন এই বিষয়ে সু-নজর দেন।

About Pratidiner Tottho

Check Also

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী অনুষ্ঠিত

মোঃ আব্দুল লতিফ: বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সোমবার (৪ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় গৌরীপুর উপজেলা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!
সর্বশেষ