মঙ্গলবার , জানুয়ারি ১৯ ২০২১
Home / বাংলাদেশ / ময়মনসিংহের একজন জনবান্ধব জননেতা ও জনপ্রতিনিধির নাম ইকরামুল হক টিটু

ময়মনসিংহের একজন জনবান্ধব জননেতা ও জনপ্রতিনিধির নাম ইকরামুল হক টিটু

আরিফ রববানীঃ প্রতিটি মানুষের স্বপ্ন থাকে। কিন্তু স্বপ্নের পথে পা বাড়ালেই একের পর এক আসতে থাকে প্রতিবন্ধকতা। যে ব্যক্তি এসব প্রতিবন্ধকতা ডিঙিয়ে এগিয়ে যাবেন তিনিই হবেন সফল। আজ এমনই একজন সমাজ সেবক নিয়ে কথা বলব। যিনি অনেক বাধা ও প্রতিবন্ধকতা ডিঙিয়ে একজন সফল ব্যক্তি (মেয়র) হিসেবে প্রতিষ্ঠিত। তিনি হলেন ময়মনসিংহ বিভাগের ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি বর্তমান সফল মেয়র তরুণ জনপ্রিয় রাজনীতিবিদ ইকরামুল হক টিটু ।

সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা পূরণে নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। তারপরও মানুষের প্রত্যাশা থাকে। তিনি, তাঁর পরিশ্রম, সাহস, ইচ্ছাশক্তি, একাগ্রতা আর প্রতিভার সমন্বয়ে সাধারণ মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য, স্থানীয় সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড সঠিক ও সুচারুভাবে বাস্তবায়নের জন্য, সর্বোপরি শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশের যে স্বপ্ন রয়েছে সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।

তারুণ্যের প্রতীক এ ব্যক্তি তাঁর বয়স ও অভিজ্ঞতা দুটিকেই হার মানিয়েছেন। তাঁর কর্মকান্ডে মনে হয় তিনি অলস নয়। তিনি অনেক পরিশ্রমী ও মেধাবী। তার অভিজ্ঞতা রয়েছে অনেক।এ সকল সফল মানুষের পেছনে আছে কিছু গল্প, তা অনেকটা রূপকথার মতো। আর সে সব গল্প থেকে মানুষ খুঁজে নেয় স্বপ্ন দেখার সম্বল, এগিয়ে যাওয়ার জন্য নতুন প্রেরণা। ময়মনসিংহের পৌরসভার সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র হিসাবে দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই উল্লেখযোগ্য উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা রেখে পরে ময়মনসিংহ পৌরসভার সাবেক নির্বাচিত মেয়র,পৌরসভা সিটিতে উন্নীত হওয়ার পর সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক এবং একাধারে তিনি সিটির নির্বাচিত মেয়র হিসাবে দায়িত্ব নিয়ে সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছেন।

এলাকার হতদরিদ্র মানুষের উন্নয়নে তাঁর নিরন্তর প্রয়াস সর্ব মহলেই প্রশংসা কুঁড়িয়েছে। রাস্তা ঘাটের উন্নয়ন, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবায় বিশেষ অবদান, সামাজিক উন্নয়নসহ বিভিন্ন প্রকল্পের বাস্তবায়নে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিয়ে এলাকায় নিজের মুখ উজ্জ্বল করেছেন। অসংখ্য মসজিদ, মাদ্রাসা, স্কুল-কলেজ ও বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠণের অন্যতম পৃষ্ঠপোষক তরুণ সমাজসেবী ইকরামুল হক টিটু ।

ব্যক্তি জীবনে তিনি অত্যন্ত নম্র, ভদ্র, সদাহাস্যোজ্জ্বল ও সাদা মনের মানুষ। তাঁর মাঝে কোন অহংকার নেই। নিরহংকারী এই মানুষটি দলমত নির্বিশেষে আজ সকলের কাছে প্রিয়। কাজ করছেন নৌকার জন্য। সর্বোপরি কাজ করছেন সাধারণ মানুষের কল্যাণের জন্য। বয়সে তরুণ হলেও তিনি মনোবল হারাননি। এই সফল মানুষটি দলীয় নেতাকর্মী থেকে শুরু করে প্রতিটি মানুষের বিপদ আপদে ছুটে চলেন প্রতি মুহুর্তে। এলাকায় তিনি একজন সাদা মনের উদার মানসিকতার ও দানশীল মানুষ হিসেবে ইতিমধ্যে পরিচিতি লাভ করেছেন।

এলাকার সাধারণ মানুষের মতে, আমরা নেতা বা মেয়র বুঝি না। টিটু ভাই একজন ভাল মানুষ। তিনি একজন কর্মঠ ব্যক্তি। তিনি মেয়র পদে আছেন বিধায় আমাদের তথা এলাকার উপকার হচ্ছে । আমাদের দুঃখ দুর্দশায় তাঁকে সহজেই পাশে পাওয়া যায়। ইতোমধ্যে তিনি সমাজের সকল মতাদর্শের মানুষের কাছে একজন দক্ষ, পরিশ্রমী ও মেধাবী সমাজ সেবক এবং উদীয়মান নেতা হিসাবে ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেছেন।

নির্বাচনকালীন সময়ে সাধারণ জনগণকে দেওয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করে একজন সফল ও জনপ্রিয় মেয়র হিসেবে সব শ্রেণির মানুষের অন্তরে স্থান করে নিয়েছেন ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের জনপ্রিয় মেয়র ইকরামুল হক টিটু ।

তিনি ময়মনসিংহে সিটি কর্পোরেশনের মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর কিছু দিনের মাথায় জাতির জনকের স্বপ্ন বাস্তবায়নে দেশরত্ন শেখ হাসিনা যে উদ্দ্যেশে ময়মনসিংহ পৌর এলাকাকে সিটি কর্পোরেশনে উন্নীত করেছেন প্রধানমন্ত্রীর সেই স্বপ্ন ও উদ্দেশ্য পুরণে তার প্রিয় সিটি এলাকাকে উন্নয়নের মাষ্টার প্লানের আওতায় এনে ব্যাপক উন্নয়ন মূলক কর্মসূচি হাতে নেন। মেধা, মনন, কর্ম প্রয়াস শ্রম ও অধ্যাবসায়ের মাধ্যমে ব্যবস্থাপনাগত দক্ষতা অর্জনের মধ্য দিয়ে তিনি নিজেকে গড়েছেন পরিশীলিতভাবে এক উজ্জ্বল অধ্যায়ে।এলাকার গরীব দুঃখী মানুষের পাশে থেকে তিনি সব সময় সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন। সর্বোপরি গরীব মেহনতী মানুষের প্রকৃত জনদরদী হিসেবে তিনি এলাকায় ব্যাপক পরিচিত ও জনপ্রিয়তা লাভ করেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তিনি ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে এলাকার উন্নয়নে মহা-পরিকল্পনা গ্রহন করেছেন। গৃহিত পরিকল্পনার আলোকে তিনি একের পর এক উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন।
এলাকা পরিদর্শনকালে নগরবাসী প্রতিবেদককে বলেন, সিটি কর্পোরেশনের বর্তমান জনপ্রিয় মেয়র ইকরামুল হক টিটু ছোট বেলা থেকেই একজন সহজ-সরল-সৎ মনের অধিকারী দানশীল ও মেধাবী মানুষ। যার ফলে এলাকাবাসী তাকে প্রথমে পৌর নির্বাচনে বিপুল ভোটে কাউন্সিল এবং পরে পৌর মেয়র থেকে সিটি কর্পোরেশনের মেয়র নির্বাচিত করেছেন। মেয়র নির্বাচিত হয়ে ইকরামুল হক টিটু নগরবাসীর উন্নয়ন করে যাচ্ছেন একাধারে। সামাজিক সচেতনতা এবং মানবিক সেবার অনন্য উদ্যোগ তাকে একজন মানবদরদী ও মহতী মানুষের উচ্চতায় অধিষ্ঠিত করেছে।

তিনি এলাকার দরিদ্র জনগোষ্ঠেীর উন্নয়নে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছেন এবং বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নিয়েছেন। তিনি এ পর্যন্ত সিটি কর্পোরেশনের বিভিন্ন রাস্তার উন্নয়নসহ স্কুল, মাদ্রাসা, কবরস্থান, মসজিদ, ঈদগাঁমাঠ সংস্কার করে গরীব দুঃখী মানুষের মাঝে বয়স্কভাতা, বিধবাভাতা সঠিকভাবে বিতরণ করছেন এবং বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করে স্থানীয় শালিসের মাধ্যমে নগরবাসীর বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করে যাচ্ছেন।
এছাড়াও তিনি নির্বাচিত হওয়ার পর নিয়মিত অফিস করছেন এবং স্থানীয় রাজনেতিক ও সামাজিক বিশ্লেষক এবং গণ্যমান্যদের পরামর্শ নিয়ে প্রতিটি উন্নয়নমূলক কাজ অতি দক্ষতার সাথে সফলভাবে করেছেন যা এখনও চলমান আছে। আগামী দিনে সিটি মেয়র ইকরামুল হক টিটু সততা ও কর্মদক্ষতার সাথে নগরবাসীর উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করে নতুন এই সিটিকে আধুনিক মডেল হিসেবে গড়ে তুলবেন এমনটায় তার প্রত্যাশা।

About Pratidiner Tottho

Check Also

গৌরীপুরে ভাতিজাকে বাঁচাতে এসে চাচা খুন

মোঃ আব্দুল লতিফঃ বিশেষ প্রতিনিধি: ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার মাওহা ইউনিয়নের কুড়িপন বাজারে ভাতিজাকে বাঁচাতে এসে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!
সর্বশেষ
সাতক্ষীরায় চেতনা নাশক স্প্রে ব্যবহার কারি চোর গ্রেফতার ৯ ইজিবাইক উদ্ধার ৩ গৌরীপুর পৌরসভা নির্বাচনে প্রতিক বরাদ্দ বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে ময়মনসিংহে দুস্থদের মাঝে খাদ্য বিতরণে র‌্যাব-১৪ ময়মনসিংহে আবাসিক গ্যাস সংযোগের দাবীতে গ্রাহকগণের মানববন্ধন ধোবাউড়ায় পুলিশের অভিযানে মাদক ব্যবসায়ী সহ গ্রেফতার-৪ গৌরীপুরে ভাতিজাকে বাঁচাতে এসে চাচা খুন গাবুরায় ছাত্রলীগের ৭৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত র‌্যাব-১৪, ময়মনসিংহ কর্তৃক দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় "বৃক্ষ রোপন কর্মসূচি ময়মনসিংহে বমি করে টাকা পয়সা ও মোবাইল ছিনতাই কালে-আটক ৫ বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী অনুষ্ঠিত